ঢাকা, রবিবার, ২২শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২১শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি, দুপুর ২:০৯
বাংলা বাংলা English English

রবিবার, ২২শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

এমসি কলেজে ধর্ষণ: চাঁদাবাজির মামলায় অভিযোগপত্র গ্রহণ


সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধূকে তুলে নিয়ে দল বেঁধে ধর্ষণের ঘটনায় দায়ের করা ছিনতাই ও চাঁদাবাজির মামলায় অভিযোগপত্র গ্রহণ করেছেন আদালত।

বুধবার (১১ মে) সকালে শিশু ও নারী নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মোহিতুল হক এ অভিযোগপত্র গ্রহণ করেন। একই আদালতে ১২ জানুয়ারি ধর্ষণ মামলার অভিযোগপত্র গ্রহণ করা হয়।

এদিন সকালে পুলিশ সিলেট নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধূ ধর্ষণ মামলার আট আসামিকে হাজির করা হয়। পরে শুনানি শেষে ধর্ষণের ঘটনার সঙ্গে জড়িত ছয় আসামির বিরুদ্ধে নির্যাতিতার স্বামীর করা চাঁদাবাজি ও ছিনতাই মামলার অভিযোগপত্র গ্রহণ করেন আদালতের বিচারক মো. মোহিতুল হক।

গত বছরের ২৫ সেপ্টেম্বর সিলেটের এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে স্বামীকে আটকে রেখে গৃহবধূকে ধর্ষণ করা হয়। এ ঘটনায় তার স্বামী বাদী হয়ে মহানগর পুলিশের শাহপরান থানায় ছয়জনের নাম উল্লেখসহ আটজনের বিরুদ্ধে দুটি মামলা করেন।

 

৩ ডিসেম্বর ছাত্রলীগের আট নেতাকর্মী সাইফুর রহমান, শাহ মাহবুবুর রহমান ওরফে রনি, তারেকুল ইসলাম ওরফে তারেক, অর্জুন লস্কর, আইনুদ্দিন ওরফে আইনুল ও মিসবাউল ইসলাম ওরফে রাজনকে ধর্ষণের জন্য অভিযুক্ত করা হয়। আট আসামিই বর্তমানে কারাগারে আছেন।

 

সব খবর