ঢাকা, বুধবার, ৬ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২২শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৭ই জিলহজ, ১৪৪৩ হিজরি, রাত ৪:৪৬
বাংলা বাংলা English English

বুধবার, ৬ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২২শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে দুই নিরাপত্তাকর্মী হাসপাতালে


রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে দুজন আহত হয়েছেন। এরা হলেন রাজধানীর কাকরাইল ইসলামী ব্যাংকের এটিএম বুথের নিরাপত্তাকর্মী মজিবর রহমান (৫৩) ও মোহাম্মদপুর বসিলার সূচনা মডেল সিটির নির্মাণাধীন ভবনের নিরাপত্তাকর্মী আবু বক্কর সিদ্দিক (৬০)।

এর একটি ঘটনা ঘটে মঙ্গলবার (২১ জুন) ভোরে, অপরটি সোমবার দিবাগত রাতে। আহত দুজনকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত মজিবরের সহকর্মী আব্দুল হান্নান জানান, কাকরাইল ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালের নিচে ইসলামী ব্যাংকের এটিএম বুথের নিরাপত্তারক্ষী মজিবর রাতের ডিউটিতে ছিলেন। ভোর ৪টার দিকে এক যুবক এটিএম বুথে ঢুকে মজিবরের মাথায় হাতুড়ি দিয়ে আঘাত করে পরে পেটে ছুরিকাঘাত করে। তখন তার চিৎকারে ওই দুর্বৃত্ত পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। তবে আশপাশের এটিএম বুথে ডিউটিতে থাকা নিরাপত্তারক্ষীরা ওই যুবককে ধরে ফেলেন। পরে তাকে পল্টন থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়।

ওই যুবক এটিএম বুথ ভেঙে টাকা লুট করার জন্য এসেছিল। নিরাপত্তারক্ষী মজিবর বাধা দিলে তাকে আহত করা হয় বলে ধারণা সহকর্মীদের। মজিবরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

 

পল্টন থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) কামরুল ইসলাম জানান, এক যুবককে আটক করা হয়েছে। তার কাছে থাকা হাতুড়ি ও ছুরি জব্দ করা হয়েছে।

এদিকে মোহাম্মদপুরে আহত নিরাপত্তারক্ষী সিদ্দিকের ছেলে মো. রিজওয়ান জানান, তারা সূচনা মডেল সিটিতে থাকেন। পাশেই একটি নির্মাণাধীন ভবনের নিরাপত্তাকর্মী হিসেবে চাকরি করেন বাবা। সোমবার (২০ জুন) রাতে যখন তিনি দায়িত্বরত ছিলেন তখন এক ব্যক্তি এসে তার মোবাইল ফোনটি চায়। অচেনা ওই ব্যক্তিকে ফোনটি না দেয়ায় তার পেটে ছুরিকাঘাত করে ফোন ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায় সে।

আহত সিদ্দিকের চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যান। খবর পেয়ে স্বজনরা তাকে সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে যান।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের সহকারী ইনচার্জ (এএসআই) আ. খান জানান, সিদ্দিকের পেটে একটি আঘাত রয়েছে। তাকে জরুরি বিভাগের ১০১ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি রাখা হয়েছে। তার অবস্থা গুরুতর।
সিদ্দিক ও মজিবর একই ওয়ার্ডে ভর্তি আছেন।

সব খবর