ঢাকা, বুধবার, ৬ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২২শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৭ই জিলহজ, ১৪৪৩ হিজরি, রাত ৪:৪৯
বাংলা বাংলা English English

বুধবার, ৬ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২২শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বানে ভাসছে কুড়িগ্রাম-গাইবান্ধা


থৈথৈ পানিতে ভাসছে কুড়িগ্রাম ও গাইবান্ধা। তলিয়ে গেছে রংপুর, নীলফামারী ও লালমনিরহাটের নিম্নাঞ্চল। দুর্ভোগে লাখ লাখ মানুষ। দেখা দিয়েছে খাবার ও বিশুদ্ধ পানির সংকট। ত্রাণ সহায়তার দাবি জানিয়েছেন দুর্গতরা।

প্রবল স্রোতে লোকালয়ে ঢুকছে পানি। ঘরবাড়ি তলিয়ে অসহায় রংপুর অঞ্চলের পাঁচ জেলার মানুষ।

বানের পানিতে ডুবেছে কুড়িগ্রাম ও গাইবান্ধা। এরমধ্যে কুড়িগ্রামের তিন শতাধিক গ্রাম তলিয়ে গেছে। বন্ধ হয়ে গেছে ৩২০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। বাধ্য হয়ে বানভাসি অনেকেই ঠাঁই নিয়েছেন আশ্রয়কেন্দ্রে।

বন্যাদুর্গত এলাকায় দেখা দিয়েছে খাবার ও বিশুদ্ধ পানির সংকট। গবাদিপশু নিয়েও বিপাকে অনেকে। জরুরি ত্রাণ সহায়তার দাবি বানভাসিদের।

পানি কমলেও বিপৎসীমার ওপরে তিস্তা। নীলফামারী ও লালমনিরহাটের হাজার হাজার মানুষ পানিবন্দি। প্রতিদিন ডুবছে নতুন নতুন এলাকা।

দুর্গত এলাকার সব আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে বলে জানান রংপুরের বিভাগীয় কমিশনার আব্দুল ওহাব ভূঞা।

বন্যাদুর্গতদের জন্য সরকার ব্যাপক ত্রাণ সহায়তা বরাদ্দ করেছে বলেও জানান বিভাগীয় কমিশনার।

সব খবর