ঢাকা, বুধবার, ৬ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২২শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৭ই জিলহজ, ১৪৪৩ হিজরি, রাত ৩:৪২
বাংলা বাংলা English English

বুধবার, ৬ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২২শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কোন ব্যাংকে ড. ইউনূসের কত টাকা, তদন্ত করতে বললেন প্রধানমন্ত্রী


নোবেলজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসের কোন ব্যাংকে কত টাকা রয়েছে, সেটা তদন্ত করতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার (২২ জুন) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এ তদন্ত করতে বলেন তিনি।

তিনি বলেন, নোবেল বিজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসের ছয় কোটি টাকা পাচারের বিষয়ে একজন সংসদ সদস্য তদন্তের দাবি করেছেন, আপনারা সাংবাদিকরা অনেক তদন্ত করেন। আপনারা করেন। এত কথা, এত কিছু লেখেন। একটা ব্যাংকের এমডি। আমাদের ৫৪টা প্রাইভেট ব্যাংকের এমডি রয়েছে। কার এত আর্থিক সক্ষমতা রয়েছে। এ রকম একটা ফাউন্ডেশনে এত ডলার দিল অনুদান হিসেবে অথবা এত টাকা খরচ করল কীভাবে, সেটা আপনারা তদন্ত করলে ভালো হয় না? আমি করতে গেলে বলবে প্রতিহিংসার শিকার করার জন্য করছি বা ইত্যাদি।

 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সাংবাদিকরা খুঁজে বের করলে সেটা ভালো হয়। আর তথ্য কোন ব্যাংকে কত টাকা আছে, কোন চেকে কত টাকা সরালো, সেসব তথ্য রয়েছে, আপনারা খুঁজে বের করেন। তারপর যদি কিছু লাগে জোগান দেব। আগে নিজেরা বের করেন। বাংলাদেশে কোন ব্যাংকে কত টাকা আছে, বিশাল চেক… এক ব্যাংক থেকে অন্য ব্যাংকে। একটা ট্রাস্ট করে ট্রাস্টের টাকা একটা প্রাইভেট ব্যাংকে কীভাবে চলে যায়? এক চেকে ৬ কোটি টাকা নিজের ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্টে.. আমরা ট্রাস্ট চালাই, সেই টাকা ব্যক্তিগতভাবে তোলার কোনো রাইট নাই।

শেখ হাসিনা বলেন, কারণ আমিও ট্রাস্টের চেয়ারপারসন। আমি ইচ্ছা করলে তুলতে পারব না। কিন্তু আমার কাছে এ তথ্য রয়েছে, ট্রাস্ট থেকে ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্টে ছয় কোটি টাকা নিয়ে সেই টাকা ভ্যানিশ। বেশি দিনের কথা নয়, ২০২০ সালের কথা। চান তো তারিখ, অ্যাকাউন্ট নম্বর, সবই আছে। আপনারা বের করেন। বলতে চাই না। এত স্বনামধন্য ব্যক্তি, আমি বললে, আমি লেখাপড়া জানি না, কিছুই জানি না। এতকিছু বলা শোভা পায় না, তাই না। এত জ্ঞানী না সাধারণ মানুষ, নিরেট বাঙালি মেয়ে, তা-ও আবার বাংলায় পড়ছি, বাংলায় পাস করা।

সব খবর