ঢাকা, বুধবার, ৬ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২২শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৭ই জিলহজ, ১৪৪৩ হিজরি, রাত ৩:১০
বাংলা বাংলা English English

বুধবার, ৬ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২২শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

‘পদ্মা সেতু নির্মাণে সবচেয়ে কম অর্থ ব্যয় হয়েছে’


পদ্মা সেতু নির্মাণের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও পরামর্শকদের ৫ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন। বুধবার (২২ জুন) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সাক্ষাৎ করেন তারা।

প্রতিনিধি দলের সদস্যরা প্রধানমন্ত্রীকে বলেন, প্রমত্তা একটি নদীর ওপর পদ্মা সেতুটি নির্মাণে সবচেয়ে কম অর্থ ব্যয় হয়েছে। পাশাপাশি, সেতুটিতে সর্বোচ্চ গুণগতমান বজায়ে রাখা হয়েছে, যাতে করে ১০০ বছরেও এটি টিকে থাকতে পারে।

সাক্ষাৎ শেষে প্রধানমন্ত্রীর ডেপুটি প্রেস সচিব কেএম শাখাওয়াত মুন সাংবাদিকদের বলেন, সভায় তারা প্রধানমন্ত্রীকে পদ্মা সেতুর বিভিন্ন কারিগরি দিক সম্পর্কে অবহিত করেন।

 

প্রতিনিধি দলের উদ্ধৃতি দিয়ে মুন আরও বলেন, ‘আমরা পদ্মা সেতু নির্মাণের অভিজ্ঞতা ও নির্মাণ প্রযুক্তির অভিজ্ঞতার ব্যাপারে বিশ্বের অন্যান্য দেশকে জানাব।’

এ সময় প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতু নির্মাণে তাদের নিষ্ঠা, আন্তরিকতা ও পেশাদারত্বের প্রশংসা করে তাদের অভিনন্দন জানান।

প্রতিনিধি দলও পদ্মা সেতু নির্মাণকালে সব ধরনের সহায়তার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান ও তার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
প্রতিনিধি দলে ছিলেন, পদ্মা সেতুর প্রকল্প ব্যবস্থাপক ও সুপারভিশন কনসাল্টেশন রবার্ট জন আভেস, ম্যানেজমেন্ট কনসালট্যান্ট দলের নেতা মাইকেল কিং, পদ্মা সেতু প্রকল্পের পরিচালক শফিকুল ইসলাম এবং পরামর্শক প্রফেসর শামীমুজ্জামান বসুনিয়া ও প্রফেসর আইনুন নিশাত।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব ড. আহমদ কায়কাউস ও প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
সূত্রঃ বাসস

সব খবর