ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৬ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২১শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১০ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি, সন্ধ্যা ৬:৫২
বাংলা বাংলা English English

বৃহস্পতিবার, ৬ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২১শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

লোক দেখানো আন্দোলনের প্রতিযোগিতা করছে বিএনপি : কৃষিমন্ত্রী


ময়মনসিংহ, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২ : কৃষিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, লোকজনকে দেখানোর জন্য আন্দোলনের প্রতিযোগিতায় নেমেছে বিএনপি। উস্কানিমূলক কথাবার্তা, স্লোাগান ও কর্মসূচি দিচ্ছে, রাস্তাঘাট অবরোধ-আটকে মানুষের চলাফেরায় ভোগান্তি সৃষ্টি করছে। আর সরকার মানুষের জানমালের নিরাপত্তা দিচ্ছে।
আজ সোমবার ময়মনসিংহের টাউন হলে এডভোকেট তারেক স্মৃতি অডিটোরিয়ামে বিদ্যমান শস্যবিন্যাসে তেল ফসলের অন্তর্ভুক্তি এবং ধানের অধিক ফলনশীল জাতসমূহের উৎপাদন বৃদ্ধি শীর্ষক কর্মশালায় যোগদানের আগে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে মন্ত্রী একথা বলেন।
বিএনপি আন্দোলনে কোন দিন সফল হয়নি উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ২০১৪ সালে বিএনপি একটানা তিন মাস আন্দোলনের নামে জ্বালাও-পোড়াও, গাড়ি ভাংচুর, মানুষকে পুড়িয়ে মারাসহ তান্ডব চালিয়েছিল। তখনও তারা সফল হয়নি।
মন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা রাজপথের মানুষ, তাদেরকে রাজপথের আন্দোলনের ভয় দেখিয়ে লাভ হবে না। আওয়ামী লীগের প্রায় সব নেতাকর্মীই রাজপথে আন্দোলন করেছে, জেল খেটেছে, মামলা-মোকদ্দমা মোকাবেলা করেছে। আগামী দিনেও যেকোন পরিস্থিতি মোকাবেলা করবে।
পণ্যের দাম নির্ধারণ করে দেয়ার বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, পণ্যের দাম নির্ধারণ নয় বরং কৃত্রিম সংকট সৃষ্টিকারীদেরকে চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা উচিত। কঠোরভাবে বাজার মনিটর ও নিয়ন্ত্রণের ওপর জোর দেন মন্ত্রী।
পরে মন্ত্রী বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট (ব্রি) এবং কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর আয়োজিত কর্মশালায় যোগ দেন। এসময় তিনি বলেন, আমন উৎপাদনে অনিশ্চয়তা কেটে গেছে। সামনের দিনগুলোতে বিশ্বব্যাপী খাদ্য সংকট বেড়ে ক্ষুধার্ত মানুষের সংখ্যা আরো বাড়বে বলে বিভিন্ন সংস্থা যে পূর্ভাবাস ও সতর্কবাণী দিচ্ছে; এ পরিস্থিতিতে বাংলাদেশের প্রস্তুতির বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার খাদ্য পরিস্থিতি মোকাবেলায় সঠিক পথে রয়েছে।
কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন কৃষিসচিব মো. সায়েদুল ইসলাম। এতে ময়মনসিংহ সিটি মেয়র ইকরামুল হক টিটু, সংসদ সদস্য কাজিম উদ্দিন আহম্মেদ, সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আবেদীন খান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন, নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এহতেশামুল আলম, বিএডিসির চেয়ারম্যান এএফএম হায়াতুল্লাহ, ব্রি’র মহাপরিচালক শাহজাহান কবীর, বিনার মহাপরিচালক মির্জা মোফাজ্জল ইসলাম, বারির মহাপরিচালক দেবাশীষ সরকার প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

সব খবর