ঢাকা, বুধবার, ২৬শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১২ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২০শে জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি, রাত ৩:০০
বাংলা বাংলা English English

গাসিক নির্বাচনে নগরপিতা নাকি নগরমাতা পাচ্ছে গাজীপুর


ফাইল ছবি

গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোট গণনা চলছে। মেয়র পদে ৮ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও মূলত হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চলছে আওয়ামী লীগ প্রার্থী আজমত উল্লা খান ও স্বতন্ত্র প্রার্থী জায়েদা খাতুনের মধ্যে। এখন পর্যন্ত মোট ৪৮০টি কেন্দ্রের মধ্যে ৪২৬টির ফলাফল পাওয়া গেছে।

বৃহস্পতিবার (২৫ মে) সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ চলে। এরপর শুরু হয় ভোট গণনা।

ভোট গণনায় দেখা যায়, ৪২৬টি কেন্দ্রের ফলাফলে টেবিলঘড়ি প্রতীকে স্বতন্ত্র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলমের মা জায়েদা খাতুন পেয়েছেন ১,৮৭,৭০০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ প্রার্থী আজমত উল্লা খান নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ১,৭৪,৫০০ ভোট। এ ছাড়া বাকি ছয়জন প্রার্থী তাদের ধারে কাছেও নেই।

ভোটের ফলে এখন পর্যন্ত আজমত উল্লা খানের চেয়ে ১৩ হাজারের বেশি ভোটে এগিয়ে রয়েছেন জায়েদা খাতুন। তবে ব্যবধান খুব বেশি না হওয়ায় সব কেন্দ্রের (মোট ৪২৬টি কেন্দ্র) ফলাফলে এগিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে আজমত উল্লা’র। তবে যাই হোক না কেন, নিশ্চিতভাবে বলা যায় এই দুইজনের মধ্যে যেকোনো একজন গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র নির্বাচিত হবেন। এখন শুধু দেখার অপেক্ষা গাজীপুর মহানগরবাসী নগরপিতা নাকি নগরমাতা পাবেন।

এদিন কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা ছাড়াই গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ হয়। কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা, মারামারি-হানাহানি বা কেন্দ্র থেকে এজেন্ট বের করে দেওয়ার মতো ঘটনা ঘটেনি। ভোটাররা শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট দিতে পেরেছেন। ভোটের সার্বিক পরিবেশ নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন ভোটার এবং প্রার্থীরাও।

গাজীপুর সিটি করপোরেশনে মোট ভোটার ১১ লাখ ৭৯ হাজার ৪৬৩ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫ লাখ ৯২ হাজার ৭৪৭ জন, নারী ভোটার ৫ লাখ ৮৬ হাজার ৬৯৮ জন ও তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার আছে ১৮ জন।

সব খবর