ঢাকা, বুধবার, ১৯শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৩ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি, সকাল ১১:২০
বাংলা বাংলা English English

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবি
আরটিভির রিপোর্টার অধরাসহ সাংবাদিকদের হয়রানির প্রতিবাদে মানববন্ধন


আরটিভির রিপোর্টার অধরাসহ সাংবাদিকদের হয়রানির প্রতিবাদে মানববন্ধন

রাজধানীর রাজারবাগ পীর সিন্ডিকেটের অপকর্মের সংবাদ প্রকাশ করায় আরটিভির স্টাফ রিপোর্টার অধরা ইয়াসমিনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার (১৪ জুলাই) বেলা ১১টায় রাজধানীর কারওয়ান বাজার সার্ক ফোয়ারার সামনে আমরা গণমাধ্যমকর্মীর উদ্যোগে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

ঘণ্টাব্যাপী চলা প্রতিবাদে অংশ নেন ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন, ঢাকা রিপোর্টাস ইউনিটি, দুদক বিটের সাংবাদিকদের সংগঠন র‍্যাকসহ বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টাস অ্যাসোসিয়েশনের নেতারা।

আরটিভির রিপোর্টার অধরাসহ সাংবাদিকদের হয়রানির প্রতিবাদে মানববন্ধন

মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি সোহেল হায়দার চৌধুরী বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে আমাদের সামনে একটি মূলা ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। মূলাটা কি? মাননীয় মন্ত্রী বলেন সংশোধিত হবে, যেদিন সংসদে উত্থাপন হল, সেদিন মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার সাহেব সংসদে মিথ্যাচার করেছেন। যখন সাংবাদিকদের উপর নির্যাতন করা হয় তখন আইনমন্ত্রী ঘোষণা দিয়েছিলেন যে, কোথাও সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা হলে তিনি নিজেই একজন আইনজীবী হিসেবে সেই মামলা পরিচালনা করবেন। আজ পর্যন্ত তাকে একটি মামলাও পরিচালনা করতে দেখিনি।

তিনি আরও বলেন, আমরা দেখছি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে যখনই সংশোধনের কথা বলা হচ্ছে তখন একের পর এক মামলা হচ্ছে। আমরা চাই অধরা ইয়াসমিনের এই মামলা প্রত্যাহার করা হবে, অথবা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বাতিল এবং অগ্রহণযোগ্য ঘোষণা করে বিবৃতি প্রকাশ করবে।

আরটিভির রিপোর্টার অধরাসহ সাংবাদিকদের হয়রানির প্রতিবাদে মানববন্ধনআরটিভির রিপোর্টার অধরাসহ সাংবাদিকদের হয়রানির প্রতিবাদে মানববন্ধন

এসময় ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন সাধারণ সম্পাদক আকতার হোসেন বলেন, রাজারবাগ পীর সিন্ডিকেটের অপকর্মের সংবাদ প্রকাশ করায় অধরা ইয়াসমিনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। মামলার পর এখন তারা বিভিন্ন ধরনের ভয় ভীতি দিচ্ছে, এমনকি প্রাণনাশের হুমকিও দিচ্ছে। তরুণ এই সাংবাদিক যখনই ভূমিদস্যুদের মুখোশ উন্মোচনের চেষ্টা করছেন ঠিক তখনই তার বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে রাজারবাগ ভূমিদস্যুরা তার পিছে লেগেছে।

তিনি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, আমরা এসব কর্মকাণ্ডের একটা শেষ দেখতে চাই। হয় এই বাংলাদেশ হবে অধরা ইয়াসমিনদের আর না হয় হবে সিন্ডিকেট ওই ভূমিদস্যুদের।

ডিজিটাল আইন বাতিলের দাবি করে মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, সরকার বলছে ডিজিটাল আইন সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে না, কিন্তু এখন দেখা যায় প্রতিদিনই ডিজিটাল আইনে সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা হচ্ছে।

আরটিভির রিপোর্টার অধরাসহ সাংবাদিকদের হয়রানির প্রতিবাদে মানববন্ধনআরটিভির রিপোর্টার অধরাসহ সাংবাদিকদের হয়রানির প্রতিবাদে মানববন্ধন

অবিলম্বে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের পাশাপাশি রাজারবাগ পীর সিন্ডিকেটের বিচার দাবি করেন নেতারা। কীভাবে প্রশাসনের নাকের ডগায় বসে রাজারবাগীরা দিনের পর দিন এমন অপকর্ম করে যাচ্ছেন সে প্রশ্ন তোলেন তারা।

এর আগেও সংবাদ প্রকাশের জেরে দশের অধিক সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা দিয়েছে এই সিন্ডিকেট।

আরটিভির রিপোর্টার অধরাসহ সাংবাদিকদের হয়রানির প্রতিবাদে মানববন্ধনআরটিভির রিপোর্টার অধরাসহ সাংবাদিকদের হয়রানির প্রতিবাদে মানববন্ধন

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আকতার হোসেনের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন- ঢাকা রিপোর্টার ইউনিটির সভাপতি মোরসালিন নোমানী, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাংগঠনিক সম্পাদক জিহাদুর রহমান জিহাদ, ঢাকা রিপোর্টার ইউনিটির সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, ঢাকা রিপোর্টার ইউনিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক শুক্কুর আলী শুভ, নুরুল ইসলাম হাসিব, সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহনাজ শারমীন, জামিউল আহসান সিপু, রিপোর্টার এগ্রেইনস্ট করাপশন-(র‍্যাক) সাধারণ সম্পাদক জেমসন মাহবুব, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক নির্বাহী সদস্য গোলাম মুজতবা ধ্রুব, সাব-এডিটর কাউন্সিলের সাবেক সভাপতি নাসিমা আক্তার সোমা, বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনের প্রচার সম্পাদক এসএম ফয়েজ, ঢাকা রিপোর্টার ইউনিটির সাবেক নারী বিষয়ক সম্পাদক তাপসী রাবেয়া আঁখি, সাবেক কার্যনির্বাহী সদস্য হাসান জাবেদ, আরটিভির সিনিয়র রিপোর্টার সাইফুল ইসলাম উজ্জ্বল প্রমুখ।

সব খবর