ঢাকা, বুধবার, ১৯শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৩ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি, সকাল ৯:০৬
বাংলা বাংলা English English

চলতি বছরের পাসের হারে শীর্ষে বরিশাল, তলানিতে মাদ্রাসা


ফাইল ছবি

চলতি বছরের মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমান পরীক্ষায় গড় পাসের হার ৮০ দশমিক ৩৯ শতাংশ। ফলাফলে দেখা গেছে সর্বোচ্চ পাসের হার বরিশাল ও সর্বনিম্নে রয়েছে বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ড।

চলতি বছরের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় সবচেয়ে বেশি ৯০ দশমিক ১৮ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছে বরিশাল বোর্ডে। গতবার এই পাসের হার ছিল ৮৯ দশমিক ৬১ শতাংশ। অন্যদিকে ৭৪ দশমিক ৭ শতাংশ শিক্ষার্থী কৃতকার্য হয়েছে মাদরাসা বোর্ডে। গতবার এই পাসের হার ছিল ৮২ দশমিক ২২ শতাংশ।

শুক্রবার (২৮ জুলাই) রাজধানীর সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে ফলের বিস্তারিত তুলে ধরার সময় এসব তথ্য জানান শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, মাদ্রাসা ও কারিগরি বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. কামাল হোসেন, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব সোলেমান খান, আন্তবোর্ড সমন্বয় কমিটির সভাপতি ও ঢাকা বোর্ডের চেয়ারম্যান তপন কুমার সরকারসহ সংশ্লিষ্ট শীর্ষ কর্মকর্তারা।

ফল বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, বরিশাল বোর্ডে অংশগ্রহণকারী পরীক্ষার্থী ৯০ হাজার ১৯৬ জন। তাদের মধ্যে উত্তীর্ণ হয় ৮১ হাজার ৩৩৯ জন। আর মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে দাখিল পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিলেন ২ লাখ ৮৫ হাজার ৮৭ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ২ লাখ ১২ হাজার ৯৬৪ জন শিক্ষার্থী।

বরিশাল বোর্ডে এবার মোট জিপিএ-৫ পেয়েছেন ৬ হাজার ৩১১ জন। গতবার জিপিএ-৫ পেয়েছিলেন ১০ হাজার ৬৮ জন পরীক্ষার্থী। জিপিএ-৫ এর সংখ্যা কমেছে। এবার দাখিলে মোট জিপিএ-৫ পেয়েছেন ৬ হাজার ২১৩ জন। গতবার জিপিএ-৫ পেয়েছিলেন ১৫ হাজার ৪৫৭ পরীক্ষার্থী। এবার দাখিলে পাসের হার ও জিপিএ-৫ কমেছে।

এ দুই শিক্ষা বোর্ডের বাইরে অন্যান্য বোর্ডের পাসের হার যথাক্রমে— ঢাকা বোর্ডে ৭৭ দশমিক ৫৫ শতাংশ, আর জিপিএ-৫ পেয়েছেন প্রায় ৪৬ হাজার ৩০৩ শিক্ষার্থী। সিলেট বোর্ডে ৭৬ দশমিক ৩৬ শতাংশ, আর জিপিএ-৫ পেয়েছেন ৫ হাজার ৪৫২ জন। রাজশাহী বোর্ডে ৮৭ দশমিক ৮৯ শতাংশ, আর জিপিএ-৫ পেয়েছেন ২৬ হাজার ৮৭৭ জন। দিনাজপুর বোর্ডে ৭৬ দশমিক ৮৭ শতাংশ, আর জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৭ হাজার ৪১০ জন। ময়মনসিংহ বোর্ডে ৮৫ দশমিক ৪৯ শতাংশ, আর জিপিএ-৫ পেয়েছেন ১৩ হাজার ১৭৭ জন। চট্টগ্রাম বোর্ডে ৭৮ দশমিক ২৯ শতাংশ, আর জিপিএ-৫ পেয়েছেন ১১ হাজার ৪৫০ জন। কুমিল্লা বোর্ডে ৭৮ দশমিক ৪২ শতাংশ, আর জিপিএ-৫ পেয়েছেন ১১ হাজার ৬২৩ জন। এসএসসি ও দাখিল ভোকেশনাল পরীক্ষায় ৮৬ দশমিক ৩৫ শতাংশ, আর জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৮ হাজার ১৪৫ জন। যশোর বোর্ডে ৮৬ দশমিক ১৭ শতাংশ, আর জিপিএ-৫ পেয়েছে ২০ হাজার ৬১৭ জন।

চলতি বছরের এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় গড় পাসের হার ৮০ দশমিক ৩৯ শতাংশ। এর মধ্যে ৯টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডে গড় পাসের হার ৮০ দশমিক ৯৪, মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডে গড় পাসের হার ৭৪ দশমিক ৭০ শতাংশ আর কারিগরি শিক্ষা বোর্ডে পাসের হার ৮৬ দশমিক ৩৫ শতাংশ।

সব খবর